এরিক কার সন্তান আদালতে প্রমাণ হবে

0
41

হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের রেখে যাওয়া ট্রাস্টের চেয়ারম্যান কাজী মো. মামুনুর রশিদ বলেছেন, এরিক সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের সন্তান। সূর্যের মতো সত্য বিষয় এটা। তারপরও তার জন্ম নিয়ে প্রশ্ন তোলা অবান্তর, ঘৃণিত ও অসভ্য।

তিনি বলেন, ‘সাবেক রাষ্ট্রপতির দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী পালনের আগমুহূর্তে এরিককে নিয়ে যে ষড়যন্ত্র চলছে তাতে জিএম কাদের জড়িত। আমরা এই ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে আদালতে যাবো, সেখানেই প্রমাণ হবে এরিক কার সন্তান।’

আরও পড়ুন: ‘আমার ও মায়ের কিছু হলে চাচা জিএম কাদের দায়ী’

বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর বারিধারায় এরশাদের প্রেসিডেন্টপার্কের বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় এরশাদের ছোট ছেলে শাহাতা জারাব এরিক উপস্থিত ছিলেন।

এরিক এরশাদের নয়নমনি ছিলেন জানিয়ে ট্রাস্টের চেয়ারম্যান বলেন, ‘হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ তার জীবদ্দশায় কখনও এরিকের জন্ম নিয়ে প্রশ্ন তুলেননি। তাহলে আজকে কেন এ ধরনের অবান্তর প্রশ্ন উঠছে। বরং মৃত্যুর আগ পর্যন্ত এরশাদ এরিককেই পরম মমতায় বুকে আগলে রেখেছেন। এরিকের ভবিষ্যত নিয়ে তার ছিল যত চিন্তা আর উদ্বেগ। এরিকের ভবিষ‌্যৎ জীবনের নিশ্চয়তার জন‌্য তিনি এই ট্রাস্ট করে গেছেন। এই ট্রাস্টের মাধ‌্যেই এরশাদ তার ছেলে এরিকের ভরণ পোষণ, ভবিষ‌্যৎ জীবন ধারণের সব ব‌্যবস্থা করেছেন।’

কাজী মামুনুর রশিদ বলেন, ‘জাতীয় পার্টির প্রয়াত চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ও এরশাদের আদরের সন্তান এরিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা নিউজ করিয়ে তাদের বিতর্কিত করা হচ্ছে। এ সবকিছুর সঙ্গে জিএম কাদের জড়িত। আর তাকে সহযোগিতা করছেন দল থেকে এরশাদ সাহেব যাকে বহিষ্কার করেছিলেন সেই গোলাম রেজা।’

তিনি বলেন, ‘জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের বনানী অফিস থেকে টাইপ করে এরিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা নিউজ সাপ্লাই দেওয়া হচ্ছে। পত্রিকায় নিউজ করানো হচ্ছে। তাহলে বুঝে নেন কার ইশারায় এসব চলছে। এরশাদের সন্তান এরিকের বিরুদ্ধে দুদিন ধরে মিথ্যা নিউজ হলো, কই চাচা হিসেবে জিএম কাদের তো প্রতিবাদ করলেন না?’

‘আমরা এই মিথ্যা নিউজের বিরুদ্ধে আদালতে যাবো। যেহেতু এখন লকডা্উন চলছে। ভার্চুয়ালি সেটা করার সুযোগ নাই। আমরা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে মামলা করবো। সত্যতা থাকলে সেখানেই সবকিছু প্রমাণ হবে’—বলেন কাজী মামুজিএম কাদেরকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের পদ থেকে অপসারণের প্রক্রিয়া চলছে, এ কারণে এরশাদ ও এরশাদের সন্তান এরিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা নিউজ করিয়ে জিএম কাদের দলের নেতৃত্ব ও কর্তৃত্ব ধরে রাখার চেষ্টা করছেন এমন অভিযোগ করে জাপার প্রাক্তন প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী মামুন বলেন, ‘জিএম কাদের জাতীয় পার্টির অবৈধ চেয়ারম্যান। তার চেয়ারম্যানের বৈধতা নিয়ে আদালতে রিট মামলা বিচারাধীন রয়েছে। বরং এরশাদের দল জাতীয় পার্টিকে জিএম কাদেরের রাহুমুক্ত করতে তাকে চেয়ারম্যানের পদ থেকে অপসারণের পক্রিয়া চলছে। এরশাদ পরিবারের প্রধান বেগম রওশন এরশাদ, এরশাদের বড় ছেলে সাদ এরশাদ, এরিকের মা বিদিশা এরশাদসহ সিনিয়র নেতাদের নেতৃত্বে জাতীয় পার্টি পুনর্গঠন প্রক্রিয়া চলছে-এ কারণে জিএম কাদের এসব মিথ্যা নিউজ করিয়ে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘গত দুদিনে মিথ্যা নিউজের বিরুদ্ধে দেশের হাজার হাজার নেতা-কর্মী ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। লকডাউন না হলে তারা ঢাকায় এসে প্রতিবাদ করতেন। আগামী ১৪ জুলাই এরশাদের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকীতে নেতা-কর্মীদের প্রতিবাদের ঝড় দেখতে পাবেন আপনারা।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here