শরীয়তপুর-চাঁদপুর ঘাট: পারাপারের অপেক্ষায় শত শত গাড়ি

0
236

শরীয়তপুর-চাঁদপুর ফেরিঘাটে হঠাৎ করে যানবাহন সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় বিপাকে পড়েছে রুটে যাতায়াতকারী যাত্রী, চালক ও কোরবানি পশুর ব্যবসায়ীরা। পারাপারের অপেক্ষায় দুই কিলোমিটার এলাকাজুড়ে সৃষ্টি হয়েছে তীব্র যানজট। এমতাবস্থায় ঘাটে ফেরির সংখ্যা বাড়ানোর দাবি যাত্রী ও চালকদের।

বুধবার রাতে ফেরিঘাটে গিয়ে দেখা যায়, শত শত যানবাহন পারাপারের অপেক্ষায় রয়েছে। এর মধ্যে কোরবানির পশুবাহী ট্রাকের সংখ্যা বেশি। দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষায় থাকা গরুগুলো ট্রাকের ভেতর ছটফট করছে। অনেক খামারি ও ব্যবসায়ী নিরুপায় হয়ে হাতপাখা দিয়ে গরুগুলোকে বাতাস করছেন।

জানা গেছে, শরীয়তপুর-চাঁদপুর ফেরিঘাট দিয়ে প্রতিদিন খুলনা, বরিশালসহ দক্ষিণাঞ্চলের ২৭ জেলার শত শত যাত্রী ও মালবাহী যানবাহন পারাপার হয়। পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষ্যে এ রুটে বৃদ্ধি পায় কোরবানি পশুবাহী যানবাহনের সংখ্যা। দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন জেলা থেকে পশু কিনে ওই রুট দিয়ে চট্টগ্রাম বিভাগের বিভিন্ন এলাকায় নিয়ে যান ব্যবসায়ীরা।

যশোর থেকে গরু নিয়ে আসা ট্রাকচালক শহিদুল ইসলাম বলেন, সেই ভোরে ঘাটে এসেছি, রাত ১০টা পার হলো এখনও পার হতে পারছি না। ঘাটে ফেরির সংখ্যা বাড়ানো দরকার।

দুলাল মিয়া, শাহপরাণ, কাদির হোসেন বলেন, গরু নিয়ে খুব বিপদে আছি। দীর্ঘক্ষণ গাড়িতে গাদাগাদি করে থাকা গরুগুলো গরমে ছটফট করছে। জানি না কপালে কী আছে।

এ বিষয়ে বিআইডব্লিউটিসির ম্যানেজার আব্দুল মমিন বলেন, হঠাৎ করে কোরবানির পশুবাহী গাড়ির সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় এমন যানজট সৃষ্টি হয়েছে। ছয়টি ফেরি চলাচল করছে। আশা করি দু-একদিনের মধ্যে সংকট সমাধান করা সম্ভব হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here