Sunday, June 23, 2024
spot_img
Homeসারাদেশরাশিয়ার বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী ঐক্যের আহ্বান

রাশিয়ার বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী ঐক্যের আহ্বান

ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন বন্ধ করতে বিশ্বকে এক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। তিনি ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন বন্ধে বিশ্ব নেতাদের এক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার নিউইয়র্কে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৮তম অধিবেশনে অংশ নিয়ে বক্তৃতা দেন প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি। তিনি বলেছেন, মস্কো খাদ্য ও শক্তিকে ‘অস্ত্রীকরণ’ করছে।

সাধারণ পরিষদে যোগদানকারী বিশ্বনেতাদের উদ্দেশে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি বলেন, ‘শয়তানকে বিশ্বাস করা যায় না। পরমাণু শক্তিধর রাশিয়া, বিশ্বকে চূড়ান্ত যুদ্ধের দিকে ঠেলে দেওয়া থেকে থামাতে হবে।’ গত বছর সংঘাত শুরু হওয়ার পর প্রথমবারের মতো নিউইয়র্কে জাতিসংঘের সদর দপ্তরে বক্তৃতা দেন জেলেনস্কি।

তিনি বলেন, ‘আগ্রাসীকে পরাজিত করার জন্য আমাদের অবশ্যই ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।

এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আমাদের সমস্ত ক্ষমতা এবং শক্তির ব্যবহার করতে হবে। এটা নিশ্চিত করতে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। যাতে এই ধরনের আগ্রাসন আবার না ঘটে।’ জেলেনস্কি মস্কোর সমালোচনা করে বলেন, ‘কিছু দখলকৃত অঞ্চলের স্বীকৃতির বিনিময়ে বিশ্ব বাজারে খাদ্য ঘাটতিকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছে (রাশিয়া)।

এ ছাড়া তিনি ইউক্রেনীয় শিশুদের অপহরণ করে মস্কো ‘গণহত্যা’ চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেন। তিনি আরো বলেন, ‘রাশিয়ার পরমাণু অস্ত্র রাখার অধিকার নেই। অস্ত্রীকরণ অবশ্যই রোধ করতে হবে। যুদ্ধাপরাধের অবশ্যই শাস্তি হতে হবে। নির্বাসিত ব্যক্তিদের অবশ্যই দেশে ফিরে আসতে হবে এবং দখলদারকে অবশ্যই তাদের নিজ ভূমিতে ফিরে আসতে হবে। আমাদের এ জন্য অবশ্যই ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’

গত মার্চ মাসে, আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালত (আইসিসি) ইউক্রেনীয় শিশুদের রাশিয়ায় বেআইনিভাবে নির্বাসনের অভিযোগে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছে। মস্কো বারবার ইউক্রেনের অভিযোগ অস্বীকার করেছে। তবে বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক বিশেষজ্ঞ এবং সংস্থা ক্রমবর্ধমান প্রমাণের দিকে ইঙ্গিত করেছে যে রাশিয়া ইউক্রেনে যুদ্ধাপরাধ করেছে।

ইউক্রেনের যুদ্ধ জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের প্রথম দিনেই স্পষ্টভাবে ফুটে উঠেছে। অনেক বিশ্ব নেতা জাতিসংঘের বার্ষিক কিয়েভকে সমর্থনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। জাতিসংঘের বার্ষিক সাধারণ পরিষদে যোগদানকারী বিশ্বনেতাদের উদ্দেশে জেলেনস্কি বলেন, ‘রাশিয়া যখন বিশ্বকে চূড়ান্ত যুদ্ধের দিকে ঠেলে দিচ্ছে, ইউক্রেন তখন এটিই নিশ্চিত করার জন্য সবকিছু করছে যে, রাশিয়ার আগ্রাসনের পর বিশ্বের কেউ অন্য কোনো দেশকে আক্রমণ করার সাহস করবে না।’

জাতিসংঘ অধিবেশনে ভাষণ দেওয়া ছাড়াও নিউইয়র্কে অন্যান্য বিশ্ব নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করার পরিকল্পনা রয়েছে জেলেনস্কির। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বাইডেনের সঙ্গেও দেখা করতে ওয়াশিংটনে যাবেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট।

সূত্র: আলজাজিরা

RELATED ARTICLES

Leave a reply

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments