Saturday, April 20, 2024
spot_img
Homeলাইফস্টাইলঈদের কেনাকাটার আগে যে বিষয়গুলো খেয়াল করবেন

ঈদের কেনাকাটার আগে যে বিষয়গুলো খেয়াল করবেন

রোজার শেষে আসবে খুশির ঈদ। ঈদের আনন্দ দ্বিগুণ হয় নতুন পোশাক আর অন্যান্য অনুষঙ্গ যোগ হলে। ঈদে প্রিয়জনের জন্য কেনাকাটা করতে ইচ্ছা হতে পারে সবারই। কিন্তু সেসব কিছু কিনতে যাওয়ার আগে কিছু বিষয়ে খেয়াল রাখা জরুরি। নয়তো আপনার কষ্টের টাকা সঠিকভাবে খরচ নাও হতে পারে। সবকিছুরই একটি পরিকল্পনা থাকা ভালো। এতে সে অনুযায়ী কাজ শেষ করা সহজ হয়। চলুন জেনে নেওয়া যাক ঈদের কেনাকাটার আগে কোন বিষয়গুলো খেয়াল করা জরুরি-

বাজেট তৈরি

প্রথমেই বাজেট তৈরি করে নিন। আপনার কতটুকু সামর্থ্য, কোন খাতে কতটুকু খরচ করতে পারবেন সেই হিসাব করুন। বাজেট অনুযায়ী কেনাকাটা করলে সামর্থ্যের মধ্যেই সেরাটা কেনার সুযোগ হতে পারে। আবার কেউ বাদ পড়ারও ভয় থাকবে না। তাই ঈদের কেনাকাটা করতে যাওয়ার আগে অবশ্যই বাজেট তৈরি করে নিন। এতে আপনারই সুবিধা হবে।

কতটুকু প্রয়োজন

কোনো জিনিস কেনার আগে সেটুকু কতটুকু প্রয়োজন সেই চিন্তাও করে নিন। কারণ অনেকে সময় কেবল অপ্রয়োজনেই অনেক টাকা নষ্ট হয়ে যায়। তাই ঈদে উপহার দেওয়ার আগে অবশ্যই খেয়াল করুন যাকে দিচ্ছেন তার জন্য সেই জিনিসটি কতটুকু প্রয়োজন। যে ধরনের পোশাক বছরে একবারও পরা হয় না, সে ধরনের পোশাক না কেনাই ভালো। এর বদলে মাঝে মাঝেই ব্যবহার করা যায় এমন পোশাক কিনলে তা কাজে লাগবে।

শিশুর পছন্দ

শিশুর জন্য কেনাকাটার ক্ষেত্রে অনেকে শিশুর পছন্দকে গুরুত্ব দেন না। এমনটা করবেন না। বরং শিশুকে নিজের পোশাক নির্বাচন করে নিতে শেখাতে পারেন। এতে শিশু নিজের পছন্দ সম্পর্কে বুঝতে শিখবে, তার মধ্যে রুচি ও ব্যক্তিত্ব গড়ে উঠবে। তাই শিশুর জন্য কেনাকাটার ক্ষেত্রে তাকে সঙ্গে রাখতে পারেন। তবে শিশু যদি না বুঝে এমন কিছুর বায়না ধরে যেটি তার জন্য সঠিক নয়, তাহলে তা তাকে দেওয়া থেকে বিরত থাকুন।

সুবিধাবঞ্চিতদের জন্য

নিজের ও প্রিয়জনের পাশাপাশি সুবিধাবঞ্চিতদের জন্যও কিছু কেনাকাটা করুন আপনার সামর্থ্য অনুযায়ী। আপনার সামান্য দানেই হয়তো তাদের ঈদটি আনন্দদায়ক হবে। অতিরিক্ত কিছু করার প্রয়োজন নেই। আপনার জন্য যতটুকু সম্ভব, ততটুকুই করুন। একজন পথশিশুর জন্য সম্ভব হলে তার জন্যই একটি ঈদের পোশাক কিনে দিন। এতে আপনার ঈদের আনন্দও বেড়ে যাবে।

অতিরিক্ত দামে নয়

ঈদের সময় অসাধু ব্যবসায়ীরা সুযোগ বুঝে দাম বাড়িয়ে দেন। যখন বুঝতে পারবেন যে ইচ্ছাকৃতভাবে পোশাক বা পণ্যের দাম বাড়ানো হয়েছে তখন সেটি কেনা থেকে বিরত থাকবেন। এতে করে তাদের উদ্দেশ্য সফল হবে না এবং আপনার টাকাও নষ্ট হবে না। তাই অতিরিক্ত যেকোনো পণ্য কেনা থেকে বিরত থাকুন।

RELATED ARTICLES

Leave a reply

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments