Thursday, May 23, 2024
spot_img
Homeসারাদেশখুলনায় পাটকলের আগুন ৭ ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি, নিয়ন্ত্রণে ১৬ ইউনিট

খুলনায় পাটকলের আগুন ৭ ঘণ্টায়ও নিয়ন্ত্রণে আসেনি, নিয়ন্ত্রণে ১৬ ইউনিট

খুলনার রূপসা উপজেলায় জুট মিলে লাগা ভয়াবহ আগুন আজ রাত ১২টা পর্যন্তও নিয়ন্ত্রণে আসেনি। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিস ও নৌবাহিনীর ১৬টি ইউনিট কাজ করছে।

বুধবার বিকেল সোয়া ৫টার দিকে সালাম জুট মিলের ৩ নম্বর গুদাম থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। মুহূর্তের মধ্যে আগুন পাশের আরও দুটি গুদামে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় কর্মরত শ্রমিকরা ভয়ে গুদাম থেকে বেরিয়ে আসেন।

পাটকলের শ্রমিক-কর্মচারীরা জানান, বিকেল সোয়া ৫টার দিকে হঠাৎ করে সালাম জুট মিলে আগুন লাগে। বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন তারা।

সালাম জুট মিলের ম্যানেজার বশির আহম্মেদ জানান, ৩ নম্বর গুদামে অবস্থিত একটি মেশিনে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে শর্ট সার্কিট হয়ে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এরপর অল্প সময়ের মধ্যে ২ ও ১ নম্বর গুদামেও আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী এম এম এ সালাম সাংবাদিকদের জানান, ৩টি গুদামে ৭৫০ টন উৎপাদিত পণ্য ছিল, যার আনুমানিক মূল্য ১০ কোটি ৫০ লাখ টাকা। এ ছাড়া ১ হাজার ৩০০ টন কাঁচাপাট ছিল, যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ২০ কোটি। এ ছাড়া যন্ত্রপাতিসহ আরও অনেক পণ্য গুদামে ছিল বলে জানান তিনি। তার দাবি করেন, আগুনে সবমিলিয়ে প্রায় ১০০ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক (খুলনা) ফারুক হোসেন শিকদার বলেন, অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের খুলনার বয়রা, টুটপাড়া, রূপসা ও বাগেরহাটের ফকিরহাট থেকে ১৪টি ইউনিট এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করেছে। নৌবাহিনীর ২টি ইউনিটও তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছে। তারা আগুন নিয়ন্ত্রণের জন্য প্রাণপণ চেষ্টা করছেন। কিন্তু এখনও আগুন নিয়ন্ত্রণে আসেনি।

তবে কীভাবে আগুনের সূত্রপাত ঘটেছে তা এখনও জানা যায়নি বলে জানান ফায়ার সার্ভিসের এই কর্মকর্তা।

তিনি আরও জানান, ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই আগুন চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে। এ ছাড়া পানি সংকটের কারণে আগুন নেভাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আরও সময় লাগতে পারে বলে জানান তিনি।

RELATED ARTICLES

Leave a reply

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments