Sunday, June 23, 2024
spot_img
Homeঅর্থনীতিশেষ মুহূর্তে ঈদ কেনাকাটায় মার্কেট-ফুটপাতে তিল ধারণের ঠাঁই নেই

শেষ মুহূর্তে ঈদ কেনাকাটায় মার্কেট-ফুটপাতে তিল ধারণের ঠাঁই নেই

পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে চলছে শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা। ক্রেতাদের সমাগম বাড়ায় ব্যস্ততা বেড়েছে বিক্রেতাদের। এ অবস্থায় মার্কেট কিংবা ফুটপাত সব জায়গাতেই যেন তিল ধারণের ঠাঁই নেই।

রোববার (৭ এপ্রিল) রাতে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী, শনির আখড়া ও মাতুয়াইল এলাকা ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

বিভিন্ন শপিংমল ও এলাকা ঘুরে দেখা যায়, বেচাকেনায় জমজমাট ঈদের বাজার। শেষ মুহূর্তের ঈদ কেনাকাটায় ব্যস্ত সব শ্রেণিপেশার মানুষ। মার্কেট ও শপিংমলের পাশাপাশি ফুটপাতেও ধুম লেগেছে ঈদ কেনাকাটার। পছন্দমতো কেনাকাটা করছেন ক্রেতারা। তবে রয়েছে বরাবরের মতোই দাম বেশি চাওয়ার অভিযোগ।

dhakapost

মার্কেট ও শপিংমলগুলোতে সাজানো হয়েছে পাঞ্জাবি-পায়জামা, শার্ট-প্যান্ট, টিশার্ট, গেঞ্জি, শাড়ি, থ্রি-পিস, শিশুদের পোশাক, টুপিসহ বিভিন্ন পোশাকের সমাহার। নজরকাড়া ডিজাইন ও রকমারি পোশাক স্থান পেয়েছে মার্কেটগুলোতে। জুতা কিংবা কসমেটিকসের দোকানেও রয়েছে বাড়তি ভিড়।

ক্রেতাদের সমাগম বাড়ায় ব্যস্ততা বেড়েছে বিক্রেতাদের। তাই বিক্রেতারাও বেশ খুশি। শেষ মুহূর্তে ক্রেতাদের চাপ সামলাতে হিমশিম খাচ্ছেন তারা। আবার ছুটির দিন হওয়ায় ভিড় অন্য দিনের তুলনায় কয়েকগুণ বেড়েছে।

dhakapost

অধিকাংশ মানুষই এসেছেন পরিবার-পরিজন নিয়ে। কেউ শার্ট, কেউ পাঞ্জাবি, কেউ থ্রি-পিস, কেউ শাড়ি, কেউ জুতা কিংবা প্রসাধনীর দরদাম করছেন, কিনেও নিচ্ছেন। আবার কেউ কেউ ঘরের জিনিসপত্রও কিনে নিচ্ছে বিভিন্ন দোকান থেকে। এবারও ঈদ বাজারে বিভিন্ন পোশাকের দাম বেশি বলে অভিযোগ ক্রেতাদের।

শনির আখড়ায় একটি মার্কেটে কথা হয় কলেজছাত্রী তামান্না ইয়াসমিনের সঙ্গে। তিনি  বলেন, গত বছরের তুলনায় এবছর পোশাকের দাম অনেক বেশি চাইছেন বিক্রেতারা। গত বছর থ্রি-পিস এক হাজার থেকে ১৫০০ টাকায় পাওয়া গেছে, এবার সেই থ্রি-পিসের দাম দুই হাজার টাকার বেশি। অন্য কাপড়েরও দাম বেড়েছে।

যাত্রাবাড়ীতে আলেয়া বেগম নামের এক গৃহিণী বলেন, আমরা ইফতারের পর এসেছি। কারণ সারাদিন রোজা রেখে মার্কেট করতে এলে ক্লান্ত হয়ে যেতে হয়। তাই ইফতার করে সন্ধ্যার পরই এসেছি।

dhakapost

তিনি বলেন, ছোট মেয়ে তিন হাজার টাকার মধ্যে একটি আলিয়াকাট নিয়েছে। অথচ এ ধরনের ড্রেস গত বছর দুই হাজার টাকার মধ্যেই ছিল। বড় মেয়ে একটি থ্রি-পিস নিয়েছে। এটারও দাম গত বছরের তুলনায় বেশি।

বিক্রেতারা বলছেন, দেশে সবকিছুরই দাম বেড়েছে। জামা-কাপড় এর বাইরে নয়। পাইকারিতে দাম বেড়েছে বলে খুচরায় বাড়তি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে।

শনির আখড়ার লেডিস ফ্যাশনের বিক্রেতা আনোয়ারুল হক  বলেন, কোন জিনিসটার দাম বাড়েনি আমাকে বলুন। সবকিছুরই তো দাম বেড়েছে। আমাদেরকে পাইকারিতে বেশি দামে কিনতে হয়েছে। এজন্য একটু বেশি দামেই বিক্রি করছি। পাইকারিতে দাম বেশি হলে আমাদের তো করার কিছু নেই।

তিনি আরও বলেন, দিনের বেলা যা হয়, তার থেকে বেশি বিক্রি হয় সন্ধ্যার পর। শেষ দিক হওয়ায় এখন অবশ্য দোকান খোলা-বন্ধের নির্দিষ্ট টাইম নেই। সকাল ১০টার পর থেকে রাত পর্যন্ত যতক্ষণ ক্রেতা থাকে ততক্ষণ দোকান খোলা রাখা হয়। আজ সরকারি ছুটির দিন। এজন্য অন্য দিনের তুলনায় ক্রেতা অনেক বেশি।

জ্যোতির্বিজ্ঞানের হিসাব অনুযায়ী, এ বছর রমজান মাস ৩০ দিনের হতে পারে। ফলে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরব ও তার প্রতিবেশী অনেক দেশে আগামী ১০ এপ্রিল (বুধবার) পবিত্র ঈদুল ফিতর অনুষ্ঠিত হতে পারে। সাধারণত মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে ঈদ অনুষ্ঠিত হওয়ার পরদিন বাংলাদেশে ঈদ উদযাপন করা হয়। সেই হিসেবে আগামী ১১ এপ্রিল বাংলাদেশে ঈদুল ফিতর অনুষ্ঠিত হতে পারে।

RELATED ARTICLES

Leave a reply

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -
Google search engine

Most Popular

Recent Comments